আদুরি বাঁচতে চায়

Spread the love
  • 16
    Shares

চৌগাছা(যশোর)প্রতিনিধি
যশোরের চৌগাছার স্কুল ছাত্রী আদুরি বাঁচতে চায়। দীর্ঘদিন ধরে কিডনি রোগে আক্রান্ত আদুরি খাতুন (১৩)। কিন্তু টাকার অভাবে তার চিকিৎসা করাতে ব্যর্থ হচ্ছেন দিন মজুর হতদরিদ্র পিতা।

শনিবার সকালে শারীরিক যন্ত্রণায় তখন আদুরি ছটফট করছিলো তখনও তাকে হাসপাতালে ভর্তি করাতে পারছিলেন না পিতামাতা। তারা অসহায় হয়ে মেয়ের চিৎকার শুনছিলেন। প্রতি বেশীদের উদ্যোগে গ্রাম থেকে কিছু টাকা তুলে দুপুরে আদুরিকে ভর্তি করা হয় যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে। ইতি মধ্যে ওষুধ কেনা ও পরীক্ষা নিরীক্ষা করাতে গ্রাম বাসীর দেয়া টাকাশেষ। এখন মেয়ের শয্যার পাশে অসহায় হয়ে বসে আছেন মা সালেহা বেগম। আর পিতা গিয়েছেন শ্রম বিক্রি করতে। অসুস্থ আদুরি বাঁচতে চায়। কিন্তু তার জন্য দরকার প্রয়োজনীয় চিকিৎসা। কিন্তু টাকার অভাবে মেয়ের চিকিৎসা করাতে ব্যর্থ হচ্ছেন যশোরের চৌগাছা উপজেলার পাশা পোল ইউনিয়নের কালিয়া কুন্ডি গ্রামের কাঠকাটা শ্রমিক আব্দুল হালিম মন্ডল।

সালেহা বেগম জানান, আমার এক মাত্র মেয়ে আদুরি লেখাপড়ায় ভালো। রানীয়ালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৫ম শ্রেণিতে লেখাপড়া করে। তার রোল নম্বর ১৩। দুই বছর ধরে ছোট্ট মেয়েটি আমার কিডনি রোগে আক্রান্ত। কয়েক দিন ধরে অবস্থা গুরুতর হয়েছে। এখন সমস্ত শরীর ফুলে যাচ্ছে। আমার স্বামী একজন দিনমজুর। অভাবের সংসারে মেয়ের চিকিৎসা করানো তাদের পক্ষে সম্ভব না। শনিবার টাকার অভাবে মেয়েকে হাসপাতালে ভর্তি করতে পারছিলাম না। প্রতিবেশীরা গ্রাম থেকে টাকা তুলে দিয়ে আদুরিকে হাসপাতালে ভর্তি করেছে। গ্রামবাসীর টাকায় আদুরির ওষুধ কেনা হয়েছে। প্যাথলজিক্যাল বিভিন্ন পরীক্ষা নিরীক্ষা করা হয়েছে। এখন আর কোন টাকানেই। কথা বলার সময় সালেহা বেগমের চেহারায় ফুটে ওঠে চরম হতাশার ছাপ। হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডের ২২ নম্বর বেডে চিকিৎসাধীন আদুরি জানায়, আমি বাঁচতে চাই। টাকার অভাবে যেনো বিনা চিকিৎসায় আমার মরতে না হয়।

আব্দুল হালিম মন্ডল জানান, ৪ শতক জমির ওপর ভিটেবাড়ি ছাড়া আমার কিছু নেই। একদিন শ্রম বিক্রি না করলে চুলোয় হাড়ি জ্বলে না। না খেয়ে থাকতে হয়। আদুরের মেয়ে আদুরির চিকিৎসা করার মতো কোন অর্থ সম্পদ আমার নেই। এক মাত্র মেয়ের চিকিৎসার জন্য তিনি রাষ্ট্রপতি প্রধানমন্ত্রীসহ সমাজের হৃদয় বান দানশীল ও বিত্তবান ব্যক্তিদের কাছে আর্থিক সাহায্যের আবেদন করেছেন। আসুন চিকিৎসার জন্য মানবিক সাহায্যেএগিয়ে আসি। আপনার সাহায্যে বাঁচতে পারে আদুরির জীবন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

x