উদ্বোধনেই শেষ হয়েছে ঝিনাইদহের কৃষক বাজার’র কার্যক্রম

Spread the love
  • 11
    Shares

ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধিঃ

নিরাপদ সবজি সরাসরি গ্রাহকদের কাছে পৌঁছে দিতে ও কৃষকের উৎপাদিত পণ্যের ন্যায্য মুল্য নিশ্চিত করতে কৃষি বিপণণ অধিদপ্তর সারা দেশে ‘কৃষক বাজার’র চালু করে। এরই অংশ হিসেবে ঝিনাইদহ শহরের নতুন হাটখোলায় গত ২৮ জুলাই উদ্বোধন করা হয় কৃষক বাজার।

ঝিনাইদহ জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের সহযোগিতায় এ বাজারের সার্বিক কার্যক্রম বাস্তবায়ন করবে জেলা কৃষি বিপণণ অধিদপ্তর। ওই দিন ফিতা কেটে বাজারের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক। সেসময় কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরসহ কৃষক ও ব্যবসায়ীরা উপস্থিত ছিলেন।

তাদের দেওয়া তথ্য মতে সদর উপজেলার বিভিন্ন এলাকার কৃষক প্রতি সোম ও মঙ্গলবার সকাল ৭ টা থেকে বেলা ১১ টা পর্যন্ত তাদের জমিতে উৎপাদিত সবজি কৃষক বাজারে সরাসরি গ্রাহকদের কাছে বিক্রি করবে। কিন্তু উদ্বোধনের পর থেকে আর একদিনও বাজার কৃষক বাজার চালু হয়নি। প্রতি সোম ও মঙ্গলবার বাজার হওয়ার কথা থাকলেও সংশ্লিষ্টদের দ্বায়িত্বে অবহেলার কারণে বাজারে কৃষক আসছেন না বলে অভিযোগ করেছেন অনেকে।

নতুন হাটখোলার বাজারর ঠিকাদার মোকাদ্দেস হোসেন বলেন, ওই দিন উদ্বোধনের পর আর একদিনও বাজার চালু হয়নি। বাজারে কোন কৃষক আসেনি বা বাজার চালুর বিষয়ে কোন কর্মকান্ড চোঁখে পড়েনি।

এলাকার সচেতন মহল বলছেন, জেলা মার্কেটিং অফিসার গোলাম মারুফ খান এর দ্বায়িত্বে থাকলেও কার অবহেলার কারণে আলোর মুখ দেখেনি সরকারের মহতি এই উদ্যোগ। ভবিষ্যতে স্থানী অবকাঠানো নির্মাণ করেন কৃষক বাজার চালুর কথা ভাবছে সরকার। কিন্তু ঝিনাইদহে যেন উদ্বোধনেই শেষ হয়েছে বাজারের কার্যক্রম।

এ ব্যাপারে জেলা মার্কেটিং অফিসার গোলাম মারুফ খান ঈদ আর ধান চাষের দোহায় দিয়ে বলেন, ঈদের কারণে বাজারে কৃষক আসায় কিছুটা সমস্যা হয়েছে। এছাড়াও কৃষক এখন চাষ চাষে ব্যস্ত রয়েছে। তাছাড়া সবজির উৎপাদন এখন কম তাই বাজারে কৃষক আসছে না। কয়েকদিনের মধ্যে চালু করা হবে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

x