করোনাভাইরাসঃ টেলিভিশন সাংবাদিক আক্রান্ত, একই চ্যানেলের ৪৭ জন কোয়ারেন্টিনে

  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

একজন সাংবাদিকের দেহে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ হয়েছে বলে জানানো হয়েছে।তিনি বাংলাদেশের একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে কর্মরত আছেন।

যার দেহে এই সংক্রমণ ঘটেছে, তিনি বেসরকারি ইন্ডিপেন্ডেন্ট টেলিভিশন চ্যানেলে কর্মরত রয়েছেন।
প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এম. শামসুর রহমান শুক্রবার টেলিভিশন চ্যানেলটির এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছেন।

আক্রান্ত ব্যক্তি ইন্ডিপেন্ডেন্ট টেলিভিশন চ্যানেলের একজন ক্যামেরাপারসন বলে জানা গেছে।

তিনি করোনাভাইরাস পজিটিভ শনাক্ত হওয়ার পর ওই টেলিভিশন চ্যানেলের আরো ৪৭ জনকে হোম কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয়েছে।

এক বিবৃতিতে শামসুর রহমান বলেন, “অত্যন্ত দুঃখের সাথে জানাচ্ছি, আমাদের এক সহকর্মী, ইন্ডিপেন্ডেন্ট টেলিভিশন পরিবারের এক সদস্য কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত” হয়েছেন।
আক্রান্ত ব্যক্তি সর্বশেষ ২৫ ও ২৬শে মার্চ ইন্ডিপেন্ডেন্ট টেলিভিশনে কাজ করেছেন। তিনি রাতেই অফিসকে জানিয়েছিলেন যে শারীরিকভাবে অসুস্থ বোধ করায় অফিসে আসতে পারবেন না। এরপর থেকে তিনি সেলফ আইসোলেশনে ছিলেন।

দুইদিন আগে তিনি আইইডিসিআর-এর হটলাইনে টেলিফোন করেন। এরপর তার স্যাম্পল পরীক্ষা করা হয় এবং ওই পরীক্ষায় দেখা যায় যে তিনি করোনাভাইরাস পজিটিভ।

“ওনার সংস্পর্শে যারা এসেছিলেন, (এমন) প্রায় ৪৭ জনের একটা তালিকা আমরা করেছি। আমরা আমাদের সে ৪৭ জন সহকর্মীকে সেলফ আইসোলেশনে পাঠিয়েছি। ২৬ তারিখ থেকে যদি হিসেব করি তাহলে আগামী পাঁচদিনে যদি কারো কোন সিম্পটম গ্রো না করে, তাহলে আর কারো সংক্রমণ হয়নি,” এক ভিডিও বার্তায় শামসুর রহমান জানান।

প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এম. শামসুর রহমান গণমাধ্যম কর্মীদের সব সময় পেশাগত দায়িত্বপালনের জন্য ঝুঁকির মধ্য দিয়ে কাজ করতে হয়।

“আমি গতকাল আমার সহকর্মীর সাথে কথা বলেছি। উনি রিকভারি করছেন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

x