করোনার ১৫ রিপোর্ট যশোরে পজেটিভ ঢাকায় নেগেটিভ

Spread the love
  • 17
    Shares

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ

ঝিনাইদহে করোনা নমুনা পরীক্ষায় পজেটিভ ধরা পড়া ৩৩ জনের মধ্যে দ্বিতীয় নমুনায় ১৫ জন করোনা আক্রান্ত নন। শুক্রবার (৮মে) সকালে আইইডিসিআর এর পুনঃপরীক্ষার রিপোর্টে এমন প্রতিবেদন দিয়েছে। তাদের তৃতীয়বার পরীক্ষা করতে হবে বলে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন  জেলা সিভিলসার্জন অফিস।

এমন ফলাফল নিয়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে ঝিনাইদহ জেলাজুড়ে। বিষয়টি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শুরু হয়েছে সমালোচনা।

ঝিনাইদহ সিভিল সার্জন ডা. সেলিনা বেগম জানান, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যাল থেকে পজেটিভ হওয়া ঝিনাইদহের ৩৩ করোনা রোগীর নমুনা ৩, ৭ ও ১৪ দিনের ব্যাবধানে আমরা ঢাকায় পাঠিয়েছিলাম। ঢাকা থেকে ১৫ জনের রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। বাকী ১৮ জনের ফলাফলও চলে আসবে। যবিপ্রবি’র রিপোর্ট নিয়ে কোন সন্দেহ আছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে সিভিল সার্জন জানান, বিষয়টি যবিপ্রবি কর্তৃপক্ষই ভালো বলতে পারবেন।

যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাবে করোনা পরীক্ষায় পজেটিভ আসা এক ব্যক্তি জানান, পজেটিভ আসার পর আমরা গোটা পরিবার মানসিকভাবে ভেঙ্গে পড়েছিলাম। সামাজিকভাবেও আমাদেরকে নানাভাবে হেয় প্রতিপন্ন হতে হয়েছে।

এদিকে দ্রুত সময়ের মধ্যে যবিপ্রবিতে পজেটিভ হওয়া রিপোর্ট ঢাকায় নেগেটিভ হওয়ার ঘটনায় পরীক্ষার মান নিয়ে কোন কোন মহল প্রশ্ন তুলছে। তারা বছলেন, করোনা নিয়ে দুই বারে দুই রকম তথ্য আসার বিষয়টি সাধারণ মানুষের মধ্যে আস্থার সংকট তৈরি করেছে। বিষয়টি স্বাস্থ্য অধিদফতরের কোন ভাবেই ছোট করে ভাবার সুযোগ নেই। এখনই এসব বিষয়গুলো নিয়ে দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ না করলে করোনা পরিস্থিতি আরও খারাপের দিকে চলে যেতে পারে।

বৃহস্পতিবার (৭মে) রাত ১০ টার দিকে ঝিনাইদহ থেকে পাঠানো করোনার ১৪টির নমুনার ফলাফল এসেছে যবিপ্রবি থেকে। যার সবগুলোর ফলাফল নেগেটিভ এসেছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক চিকিৎসক জানান, করোনা ভাইরাস তার ক্যারেক্টার পরিবর্তন করে অটোমেটিক নেগেটিভ হতে পারে। করোনা আক্রান্ত রোগীর রক্ত ল্যাবে বসানোর আগ পর্যন্ত ভাইরাস তার চরিত্র পরিবর্তন করতে পারে। যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (যবিপ্রবি) থেকে পজেটিভ হওয়া ঝিনাইদহের ১৫ রোগীর রিপোর্টের ক্ষেত্রে এমন হতে পারে। তবে তাদের তৃতীয়বার পরীক্ষা করলে বিষয়টি বুঝা যাবে। জেলায় করোনা আক্রান্ত রোগী সবাই সুস্থ আছেন বলে জানানা তিনি।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

x