গাইবান্ধায় বাস ট্রাকের সংঘর্ষে মা-মেয়ে নিহত : আহত ৩০

Spread the love
  • 9
    Shares

গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধিঃ

গাইবান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার শেষ সীমানায়  পঞ্চগড় হতে চট্রগ্রামগামী হানিফ পরিবহন ও ঢাকাগামী একই দিক থেকে আসা বাঁশ বোঝাই ট্রাকের সংঘর্ষে ঘটনায় স্থানীয় হাটুরে মা ও মেয়ে নিহত হয়েছে।

১১ ফেব্রয়ারী মঙ্গলবার রাত ১০ টার দিকে রংপুর-বগুড়া মহাসড়কে পলাশবাড়ী ও গোবিন্দগঞ্জ সীমান্ত এলাকা অভিরামপুর নামক স্থানে ছোট একটি বাজারে এ দূর্ঘটনা ঘটে।দূর্ঘটনাকবলিত স্থানটি গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার অন্তভুক্ত । এ সংঘর্ষে  যানবাহন দুটি সড়ক হতে দুরত্বে দোকানে ঢুকে যায়। এতে ৪ টি দোকানের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়।

ঘটনাস্থলেই মেয়ে শেফালী বেগম (৪৫) নিহত হয় এবং মা রাহেলা বেওয়া (৭৫) রংপুর মেডিকেল কলেজে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১১.১৫ মিনিটে মারা যায়। নিহতরা হলেন পলাশবাড়ী উপজেলার বরিশাল ইউনিয়নের রামপুর গ্রামের মৃত খোকা মিয়ার স্ত্রী ৫ সন্তানের জননী ও মেয়ে শেফালী বেগম ১ সন্তানের জননী।

নিহত মা-মেয়ে গাড়ীর যাত্রী ছিলেন না। তারা স্থানীয় রাত সাড়ে ৯টার দিকে মা-মেয়ে অভিরামপুর বাজারের দোকানে পণ্য কিনতে আসে। এসময় বাঁশ বোঝাই ট্রাক ও যাত্রীবাহী বাসের সংঘর্ষে এ দূর্ঘটনায় পড়ে দুজনে প্রান হারান । প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, পঞ্চগড় হতে চট্টগ্রামগামী হানিফ পরিবহনের একটি বাস ঢাকা মেট্রো-ব ১৫-৩৮০৪ ও একই দিক হতে আসা বাঁশ বোঝাই ট্রাকটি সিলেট-ট ১১-০৪৭৫ এর সংঘর্ষে এ ঘটনা ঘটে। হানিফ পরিবহনের যাত্রীদের মধ্যে কমপক্ষে ৩০ জন আহত হয়। আহতদের মধ্যে পলাশবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ১০ জন ও রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ৪ জনকে ভর্তি করা হয়েছে। তাৎক্ষনিক আহতদের পরিচয় পাওয়া যায়নি। সংঘর্ষে কবলিত উভয় পরিবহনের ড্রাইভার পলিয়ে গেলেও পরিবহন দুটি আটক করেছে পুলিশ।

হাইওয়ে থানা পুলিশের ওসির নাম্বারে যোগাযোগ করা হলে থানার এস.আই শাহিন বিষয়টি নিশ্চিত করে আইনি  প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে বলে জানান।

 

 

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

x