জাতির পিতাকে সপরিবারে নির্মমভাবে হত্যা করেই এদেশে ষড়যন্ত্র শুরু করে সেই হত্যা কারীরা -- এম,পি চঞ্চল

জাতির পিতাকে সপরিবারে নির্মমভাবে হত্যা করেই এদেশে ষড়যন্ত্র শুরু করে সেই হত্যা কারীরা –এম,পি চঞ্চল

সারাদেশ

শামীম খানঃ

ঝিনাইদহ-৩ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব শফিকুল আজম খান চঞ্চল বলেছেন,জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে স্বাধীনতা অর্জনের পর থেকেই মুক্তিযুদ্ধের পরাজিত শক্তি এদেশে ষড়যন্ত্র শুরু করে। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগষ্ট ষড়যন্ত্রকারীরা জাতির জনককে সপরিবারে নির্মমভাবে হত্যা করে।

সেই পরাজিত শক্তিরাই আবার ২১ আগষ্টের ইতিহাসের বর্বরোচিত গ্রেনেড হামলা চালিয়ে জাতির জনকের কন্যা আমাদের প্রীয় নেত্রীকে হত্যার চেষ্টা করে। তিনি আরো বলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এ দেশকে স্বাধীন করেছে,আর প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা দেশের অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির জন্য দিন-রাত কাজ করে চলেছেন।

আমাদের নেত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা আজ বাঙ্গালী জাতিকে উচ্চ আসনে নিয়ে গেছে। মানুষের ভাগ্যোর পরিবর্তন করেছেন। জাতির জনকের আদর্শ বাস্তবায়নে কাজ করে যাচ্ছেন।

শনিবার(২৮ আগষ্ট) বিকালে ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার নাটিমা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের উদ্যোগে সস্তা মাধ্যমিক বিদ্যালয় চত্তরে অনুষ্ঠিত জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬ তম শাহাদৎ বার্ষীকির আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দান কালে তিনি এ কথা বলেন।

নাটিমা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি নজরুল ইসলাম মাষ্টারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ নিজাম উদ্দীন আহাম্মেদ,উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ময়জদ্দীন হামিদ,

ভাইস চেয়ারম্যান আজিজুল হক আজা,পৌর আওয়ামীলীগের সব সভাপতি মুকুল চৌধুরী, নাটিমা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেম মাষ্টার,উপজেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক মনিরুল ইসলাম,জেলা পরিষদের সদস্য ও উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি প্রভাষক এম এ আসাদ,জেলা পরিষদের সদস্য শেখ হাসেম আলী, নাটিমা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ নেতা ফললুর রহমান,ইউপি সদস্য ও আওয়ামীলীগ নেতা মন্টু মেম্বার,ওয়াসীম মেম্বার,

জেলা ছাত্রলীগের সহ সভাপতি আনোয়ার জাহিদ শান্তি,উপজেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি মীর সাহেব আলী,সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর হান্নান, নাটিমা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এনামুল হক প্রমুখ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *