ঝিনাইদহে করোন যুদ্ধে জয়ী হলেন ৫ ডাক্তার নার্সসহ ১৪ জন

Spread the love
  • 26
    Shares

ঝিনাইদহ,প্রতিনিধিঃ

ঝিনাইদহে করোনা আক্রান্তদের মধ্যে থেকে পাঁচ চিকিৎসক ও নার্সসহ ১৪ করোনা রোগীকে ছাড়পত্র দেওয়া ও ফুলের শুভেচ্ছা জানানো হয়েছে।

রোববার (১৭মে) বেলা ১১ টার দিকে করোনা ডেডিকেটেড শিশু হাসপাতাল ও জেলার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে তাদেরকে এ ছাড়পত্র ও দেওয়া হয়। এরমধ্যে ঝিনাইদহ সদরে ছয়জন, কালীগঞ্জে ছয়জন, মহেশপুরে একজন ও শৈলকুপায় একজন রয়েছে।

জেলায় এ পর্যন্ত  ৪৩ জনের শরীরে করোনার অস্তিত্ব পাওয়া যায়। স্বাস্থ্য বিভাগের বিশেষ টিমের তত্বাবধানে দির্ঘ চিকিৎসার পর এই ১৪ জনের শরীরে করোনা নেগেটিভ পাওয়ায় মুক্ত জীবনের তাদের ছাড়পত্র দেওয়া হলো। তবে জেলা স্বাস্থ্য দপ্তরের পক্ষ থেকে তাদেরকে স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলার জন্য বিশেষ পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

করোনা থেকে স্বুস্থ হয়ে ফেরার পর সদর হাসপাতালের গাইনি বিশেষজ্ঞ ডা. মার্ফিয়া খাতুন জানান, এখন ভালো লাগছে করোনা মুক্ত হয়ে। তবে করোনা সংক্রমণের পর ব্যাপক সামাজিক বঞ্চনা, হেয়-প্রতিপন্নের স্বীকার হয়েছি। তবে এখন সুস্থ হয়েও কতটুকু স্বাভাবিক হতে পারবো জানিনা।

করোনা বিজয়ীদের ছাড়পত্র অনুষ্ঠানে ঝিনাইদহ সিভিল সার্জন ডা. সেলিনা বেগম উপস্থিত থেকে তাদের হাতে করোনা মুক্ত সনদ ও জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষ থেকে উপহার সামগ্রী তুলে দেন। এসময় জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথ, ঝিনাইদহ পৌর মেয়র সাইদুল করিম মিন্টু, জেলা করোনা ইউনিটের প্রধান চিকিৎসক ডা. জাকির হোসেন সহ অন্যান্য চিকিৎসকরা উপস্থিত ছিলেন।

ঝিনাইদহ সিভিল সার্জন ডা. সেলিনা বেগম জানান, জেলায় করোনায় আক্রান ৪৩ জনের মধ্যে ১৪ জনেকে ছাড়পত্র দেওয়া হলো। এদের মধ্যে একজন শিশু হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে ভর্তি ছিলেন। আর বাকিরা সবাই নিজ নিজ বাড়িতে থেকেই সুস্থ হয়েছেন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাদের নমুনা পরীক্ষা নেগেটিভ আসায় ছাড়পত্র দেয়া হয়। তবে বাড়ি ফিরে গেলেও সুস্থ হওয়া ব্যক্তিরা স্বাস্থ্য বিভাগের নজরে থাকবেন। তিনি জানান, বাকিদের অবস্থাও ভালো দিকেই যাচ্ছে আশাকরি তারাও সুস্থ হয়ে উঠবেন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

x