ঝিনাইদহে চলছে রমরমা কোচিং বাণিজ্য

Spread the love
  • 15
    Shares

দেশের যে কোন সরকারি বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক কোচিং বাণিজ্যের সাথে জড়িত থাকতে পারবে না। উচ্চ আদালত একটি নির্দেশনা প্রদান করেছে। শিক্ষা মন্ত্রীও বলেছেন এস এস সি পরীক্ষা চলাকালীন সময় কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সকল প্রকার প্রাইভেট পাড়ান ও কোচিং বন্ধ থাকবে। কিন্তু দেখা যাচ্ছে সরকার ও আদালতের সকল প্রকার নির্দেশনা অমান্য করে ঝিনাইদহ সদর উপজেলা নলডাঙ্গা বিদ্যালয়ে চলছে অবাধে কোচিং বাণিজ্যর রমরমা ব্যবসা।

এলাকার সচেতন মানুষদের অভিযোগের ভিত্তিতে শনিবার সকাল সাড়ে ৮ টায় সরেজমিনে গেলে দেখা যায় ইব্রাহিম মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ইংরাজি ও অংকের শিক্ষক জাহাঙ্গীর আলম ও আরিফ নামে দুই জন শিক্ষক স্কুলের দুই রুমের এক রুমে ৭ শ্রেণীর ২৫ জন ও অন্য রুমে ৮ ম থেকে ১০ ম শ্রেণীর ৪০ জনের ব্যাজ করে প্রাইভেট পড়াচ্ছেন।

ঝিনাইদহে চলছে রমরমা কোচিং বাণিজ্য

উচ্চ আদালত ও শিক্ষা মন্ত্রী’র নির্দেশ অমান্য করে কি ভবে প্রাইভেট পড়াচ্ছে জানতে চাইলে দুই শিক্ষক বলেন,  আমাদের স্কুল থেকে অনুমতি নেওয়া আছে ও অভিভাবকরা পড়ানোর জন্য আবেদন করেছে। দরকার হলে আপনি প্রধান শিক্ষকের সাথে কথা বলতে পারেন। নলডাঙ্গা ইব্রাহিম মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুস সালাম এ বিষয়ে বলেন, ম্যনিঞ্জিং কমিটির অনুমতি আছে। আমারা নীতিমালার মধ্যেই আছি এবং আইন মেনে পড়াচ্ছি।

ঝিনাইদহ সদর উপজেলা শিক্ষা অফিসার আরিফ সরকার মোবাইলে বলেন, কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কোচিং করার কোন আইন নেই,  আরও বিস্তারিত জানতে হলে অফিসে আসেন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

x