ঝিনাইদহে ব্যাংক কর্মকর্তাদের হাতে মারধরের শিকার এক শিক্ষক

Spread the love
  • 1.2K
    Shares

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ

অগ্রণী ব্যাংক ঝিনাইদহ প্রধান শাখার চরম অব্যবস্থাপানার প্রতিবাদ করায় এক শিক্ষক রবিউল ইসলাম রবিকে মারধর কারার অভিযোগ উঠেছে। ব্যাংকের দুই কর্মকর্তা ও এক আনসার সদস্য (প্রহরী) বিরুদ্ধে।

জেলা শহরের চাকলা পাড়া এলাকার মৃত সামছুর রহমানের ছেলে শিক্ষক রবিউল ইসলাম রবির। তিনি জানান, বাসা বাড়িতে টিউশন করে এবং সাথে একটি কোচিং সেন্টারে পড়িয়ে সংসার চলে তার। করোনার কারণে গত ৩ মাস ধরে তার আয়ের সব পথ বন্ধ। এতদিন ছাত্র-ছাত্রীরা সাহায্য করে আসছিল। ব্যাংকে তার জমা আছে মাত্র দুই হাজার সত্তর টাকা।

রোববার (১৭মে) নিরুপায় হয়ে টাকা উঠানোর জন্য ঝিনাইদহ শহরের অগ্রণী ব্যাংকে যান। এসময় লাইনে দাড়ান তিনি। টাকা তোলার জন্য দীর্ঘ লাইনে নারীসহ সবাই একই লাইনে দাড়িয়ে। সেখানে কোন শৃঙ্খলা নেই। এ অবস্থা দেখে তিনি পৃথক পৃথক লাইন করে দেওয়ার কথা বলেন। এ কথা বলা মাত্রই ব্যাংকের সিনিয়র অফিসার সাইফ মাহমুদ, বেনজির আহম্মেদ এবং আনসার সদস্য মনির (প্রহরী) ছুটে এসে তাকে পিটিয়ে জখম করে। এতে তার মাথায় প্রচন্ড আঘাত লাগে। এবং মারধরের কারেণ তার চশমা ও হাতে থাকা মোবাইল ভেঙে যায়।

সদর থানায় অভিযোগ করলে পরে থানায় ঘটনাটি মিটমাট হওয়ার পর বাড়ি যাওয়ার পথে আরেক দফা হামলার চেষ্টা করা হয়। এর পর তিনি আবারও থানায় যান। কিন্তু পুলিশ কোনও পদক্ষেপ নেয়নি।

তবে ব্যাংকের ম্যানেজার হাসিবুর রহমান জানান, পুলিশ ফুটেজ দেখে বিষয়টি মীমাংসা করে দিয়েছেন। তাই এ নিয়ে কোনও তদন্ত কমিটি করা হয়নি।

এ বিষয়ে ঝিনাইদহ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান জানান, তাদের ডেকে থানায় ঘটনাটি মিটমাট করার পরও কেনো এমন হলো বুঝতে পারছি না। তিনি জানান এঘটনায় শিক্ষক রবিউল ইসলাম রবি লিখিত অভিযোগ করেছেন। ঘটনাটি তদন্ত করা হচ্ছে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

x