পর্দা উঠল নারী টি-টোয়োন্ট বিশ্বকাপের

Spread the love
  • 13
    Shares

উৎস ডেস্কঃ

আজ ভারত-অস্ট্রেলিয়ার লড়াই দিয়ে পর্দা উঠেছে নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের। সিডনিতে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে আজ বাংলাদেশ সময় দুপুর ২টায় মাঠে নেমেছে ভারতের প্রমিলারা।

এবারের বিশ্বকাপটি টুর্নামেন্টের সপ্তম আসর। গেল ছয় আসরে চারবারই শিরোপা জয় করেছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া। বাকি দুটি শিরোপা ইংল্যান্ড ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ নারী ক্রিকেট দল ঘরে তুলেছে।

সে হিসেবে আসরের ফেবারিটের বিপক্ষেই প্রথম ম্যাচে দেখা হচ্ছে ভারতীয় নারী ক্রিকেটারদের।
স্বাগতিকদের শিরোপার অন্যতম দাবিদার বলে মানা হলেও এবার যে কোনো দল চমক দেখাতে পারে বলে মত দিচ্ছেন বিশ্লেষকরা।
বিশেষকরে সম্প্রতি বাংলাদেশের বাঘিনীদের পারফর্মেন্স তেমনটাই জানান দিচ্ছে। প্রস্তুতি ম্যাচে শক্তিশালী পাকিস্তানকে হারিয়ে বেশ চাঙা রয়েছেন সালমা খাতুনরা।

শেষ ওভারে পাকিস্তানের মেয়েদের ১০ রান না করতে দেয়া বাঘিনী বোলার জাহানারা আলমের পারফর্মেন্সে স্বপ্ন দেখছে লাল-সবুজের সমর্থকরা।
এবারের আসরে বাংলাদেশ দলের বেশ কয়েকজন ক্রিকেটারের ওপর নজর থাকবে ক্রিকেটভক্তদের। বিশেষকরে ২৩ বছর বয়সি উইকেটরক্ষক-ব্যাটার নিগার সুলতানা ও অলরাউন্ডার রুমানা আহমেদের দিকে তাকিয়ে থাকবে টাইগ্রেস সমর্থকরা।
কেননা, এই দুই বাঘিনীর সাম্প্রতিক ফর্ম যেমন বেশ ভালো, তার ওপর অস্ট্রেলিয়ার ঘরোয়া প্রতিযোগিতা বিগ ব্যাশে খেলার অভিজ্ঞতা আছে দুজনেরই।

হঠাৎ উজ্জীবিত হয়ে নিজের সেরাটা দিয়ে যে কোনো ম্যাচকে নিজেদের অনুকূলে নেয়ার ক্ষমতা রয়েছে তাদের।
এছাড়া অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে নাহিদা আক্তারের মায়াবী ঘূর্ণিজাদুর ভেল্কি কাজ করলে বাংলাদেশের বিপক্ষে বড় রান সংগ্রহে অবশ্যই বেগ পেতে হবে প্রতিপক্ষের।

দলের অন্যতম পেসার রিতু মনির দিকেও তাকিয়ে আছেন সালমা খাতুন। এর পাশাপাশি আছেন দলের দুই পরীক্ষিত সেনানি জাহানারা আলম ও খাদিজাতুল কুবরা।

সবমিলিয়ে অভিজ্ঞ সালমা খাতুনের নেতৃত্বে বেশ ব্যালেন্স একটি দল অংশ নিচ্ছে এবারের নারী বিশ্বকাপে।
তবে শক্ত গ্রুপে পড়ায় এবারের মিশন বেশ কঠিনই হচ্ছে টাইগ্রেসদের।

বিশ্বকাপের এই আসরে ‘এ’ গ্রুপে রয়েছে বাংলাদেশ। সালমাদের প্রতিপক্ষ- স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়া, ভারত, নিউজিল্যান্ড ও শ্রীলংকা।
সূচি অনুযায়ী – পার্থে ২৪ ফেব্রুয়ারি ভারতের বিপক্ষের ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে টাইগ্রেসদের বিশ্বকাপ মিশন। গ্রুপপর্বে বাংলাদেশের পরের ম্যাচগুলো হবে যথাক্রমে- ২৭ ফেব্রম্নয়ারি (অস্ট্রেলিয়া), ২৯ ফেব্রম্নয়ারি (নিউজিল্যান্ড) ও ২ মার্চ (শ্রীলংকা)।
বি গ্রুপের প্রতিদন্দ্বীরা হচ্ছে – ইংল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা, পাকিস্তান ও থাইল্যান্ড।

প্রসঙ্গত, বিগত বিশ্বকাপে উল্লেখযোগ্য প্রাপ্তি নেই বাংলাদেশ নারী দলের। এরমধ্যে এবার কঠিন গ্রুপে তাদের অবস্থান।
২০১৪ সালে ঘরের মাঠে মাত্র দুটো ম্যাচে জিতেছিল লাল-সুবজের নারীরা। যা বিশ্বকাপে প্রাপ্তির খাতায় এ টুকুই লেখা।
তবে অনুর্ধ্ব-১৯ যুব বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলের চ্যাম্পিয়ানের প্রভাব অনেকটাই পড়েছে নারী দলে। এ জয়ে বেশ চাঙা মনোভাব নিয়েই প্রথম ম্যাচে শক্তিশালী ভারতের বিপক্ষে নামবে টিম টাইগ্রেস।

সূত্র: বিডিক্রিকটাইম

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

x