পেকুয়ায় স্কুল থেকে ৩০০ বস্তা ত্রানের চাল উদ্ধার, চেয়ারম্যান বরখাস্ত।

Spread the love
  • 6
    Shares

আবদুল মান্নান,কক্সবাজারঃ
গত ২৬ এপ্রিল রাত দুইটার দিকে পেকুয়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুল আযমের নেতৃত্বে এক অভিযানে বারবাকিয়া হোসনে আরা বালিকা বিদ্যালয়ের শ্রেণী কক্ষ থেকে ৩০০ বস্তা ত্রানের চাল উদ্ধার করা হয়।

কক্সবাজার জেলার পেকুয়া উপজেলার টইটং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহেদুল ইসলাম চৌধুরীর বিরূদ্ধে ত্রানের চাল আত্মসাতের জন্য মামলা ও তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয় ২৯/৪/২০২০ তারিখের এক প্রজ্ঞপনে তাকে চেয়ারম্যান পদ থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

২৭ এপ্রলি অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক কক্সবাজার আশরাফুল আফসার পেকুয়ায় অবস্থান করে ত্রান উদ্ধারের বিষয়ে তদন্ত করেন। তদন্ত শেষে ২৮ এপ্রিল উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম রাতের দিকে বিশেষ ক্ষমতা আইনে টইটং ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান জাহেদুল ইসলাম চৌধুরীকে একমাত্র আসামী করে পেকুয়া থানায় মামলা করেন। মামলা নং- ৪/২০ পেকুয়া।

মামলার বাদী পিআইও আমিনুল ইসলাম বলেন, হত দরিদ্রদের মাঝে বিতরণের জন্য চেয়ারম্যান জাহেদুল ইসলাম চৌধুরী প্রকল্পের ১৫ টন চাল চকরিয়া খাদ্য গুদাম থেকে উত্তোলন করেন। গত ৬ এপ্রিল চাল উত্তোলন করলেও তিনি কোন মাষ্টার রোল জমা দিতে পারেননি।

কক্সবাজার জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের দুর্যোগ ও ত্রাণ শাখা থেকে ২৯ /৭/২০১৯ ইং তারিখে মানবিক সহায়তা হিসেবে ৪০ মেট্রিক টন চাল পেকুয়া উপজেলার জন্য বরাদ্দ দেওয়া হয়। তন্মধ্যে ২৫ টন চাল অসহায়দের মাঝে বিতরণ করা হয়। চলমান সংক্রমনের সময় গরিব ও অসহায়দের মাঝে খাদ্য বিতরণের জন্য উপজেলা নির্বহী অফিসার সাইকা সাহাদত টইটং ইউনিয়নের জন্য ১৫ টন চাল বরাদ্দ দেন।

গত ৬ এপ্রিল চকরিয়া খাদ্য গুদাম থেকে জাহেদুল ইসলাম চৌধুৰী উত্তোলন করে বিলি না করে ভিন্ন ইউনিয়ন বারবাকিয়া হোসন আরা বালিকা বিদ্যালয়ের শ্রেণী কক্ষে আত্মসাতের জন্য গোপনে জমা রাখেন। বিষয়টি প্রকাশ পাওয়ার পর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কামরুল আযম গভীর রাতে অভিযান চালিয়ে স্কুলের শ্রেণী কক্ষ থেকে উদ্ধার করেন। টইটং ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সেক্রেটারী ও চেয়ারম্যান জাহেদুল ইসলাম চৌধুরী বর্তমানে পলাতক রয়েছেন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

x