বেসরকারি শিক্ষকরা ঈদের আগে সরকারি নিয়মে উৎসব ভাতা চান

Spread the love

শনিবার এক বিবৃতিতে সমিতির কেন্দ্রীয় সভাপতি মো: নজরুল ইসলাম রনি ও মহাসচিব মোঃ মেজবাহুল ইসলাম প্রিন্স স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে সরকারি শিক্ষকদের ন্যায় ঈদ বোনাসের দাবি জানান।

আসন্ন ঈদুল ফিতরের আগেই সরকারি শিক্ষকদের ন্যায় ঈদ বোনাস দাবি করেছে বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি। বর্তমানে এমপিওভুক্ত শিক্ষক ও কর্মচারীরা যথাক্রমে মুল বেতনের (এমপিওর) ২৫ ও ৫০ শতাংশ বোনস পান। দীর্ঘ দেনদরবার ও আন্দোলনের পর ২০০৪ খ্রিষ্টাব্দে সরকার প্রথমবারের মতো এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের জন্যও ঈদ বোনাস চালু করে। অদ্যাবধি কোনও পরিবর্তন নেই।

বিবৃতিতে কর্মচারীদের ৫০ শতাংশ বোনাস পাওয়া নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলা হয়, এমপিওভুক্ত শিক্ষকরা দীর্ঘ ১৬বছর ধরে ২৫% ঈদবোনাস পেয়ে আসছেন।অথচ কর্মচারীদের দেয়া হয় ৫০%। ঈদ এলেই এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের দুঃখ দুর্দশা বেড়ে যায়।

সরকারী স্কুলের শিক্ষক ও সরকারী কর্মকর্তাগণ ১০০ ভাগ ঈদবোনাস পেয়ে আসছেন। এমপিওভুক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা একই সিলেবাস এবং একই কারিকুলামে পাঠদান করে থাকে।

প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে শিক্ষকনেতারা বলেন-মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের(মাউশি) মহাপরিচালককে বার বার ঈদবোনাস পরিবর্তনে দাবির কথা বলা হলেও তিনি কোন ভূমিকা পালন করেন না।অথচ নিজেরা শতভাগ ঈদবোনাস উতোলন করেন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

x