মহেশপুরে অন্যায়ের প্রতিবাদ করায় যুবককে বেদম মারপিট

ঝিনাইদহের মহেশপুরে অন্যায়ের প্রতিবাদ করায় জাহিদ হাসান (২৮) নামে এক যুবককে বেধরক মারপিট করে গুরুতর করা হয়েছে। বর্তমানে তিনি গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

ঘটনাটি ঘটেছে (৮ই আগষ্ট) শনিবার দুপুরে। আহত জাহিদ হাসান মহেশপুর শহরের উপজেলা পাড়ার আব্দুল কাদেরের ছেলে। এব্যাপারে ঘটনার দিনই আহতের পিতা বাদী হয়ে মৃত রুহুল কাজীর ছেলে তুহিন কাজী (২৩) ও তারেক কাজী (২১) বাশার কাজীর ছেলে সাগর কাজীকে (১৯) আসামী করে মহেশপুর থানায় লিখিত অভিয়োগ দায়ের করেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, মহেশপুর শহরের উপজেলা পাড়ার বৈদ্যুতিক সংযোগের ভিডিং ধারন করছিলেন অফিস কর্তৃপক্ষ। এসময় আসামীরা বাধা দিতে আসে এবং বিদ্যুতের কাজের কর্মরত লোকদেরকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে মারতে উদ্ধত হয়।

এসময় জাহিদ হাসান প্রতিবাদ করলে আসামীরা তাকে বেদরক মারপিট করে ফেলে রাখেন এবং আহতের বাড়ি যেয়ে তার মাকে হুমকি দিয়ে বলেন, যা তোর বড় ছেলেকে মেরে ফেলে রেখেছি হাসপাতালে নিয়ে যা। পরে আহতের পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে মহেশপুর হাসপাতালে ভর্তি করেন।

আহতের পিতা আব্দুল কাদের বলেন, অন্যায় ভাবে আমার ছেলেকে গুরুতর মারপিট করা হয়েছে। আমি পুলিশ প্রশাসনের কাছের এমন নির্যাতনের জোর বিচার চাই।

মহেশপুর বিদ্যুৎ অফিসের লাইনম্যান আনারুল ইসলাম জানান, আসামীরা আমাদের কাজে বাধা দিয়ে আমাদেরকে লাঞ্ছিত করে একই সাথে প্রতিবাদকারী জাহিদকে আমাদের সামনে বেধরক মারপিট করে।

মহেশপুর থানার এ এস আই সজল জানান, এব্যাপারে লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে আসামীদের বাড়িতে গিয়ে কোন আসামীকে পাওয়া যায়নি।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

x