মানবতাবিরোধী অপরাধে জড়িত জামায়াত নেতাদের রেহাই নেই: আইনমন্ত্রী

  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

জামায়াত নেতারা যে নামেই নতুন দল করুক না কেন মানবতাবিরোধী অপরাধে জড়িত থাকলে তাদের বিচার হবেই।

মঙ্গলবার সচিবালয়ে নিউইয়র্ক স্টেট গভর্নরের ২৫ সেপ্টেম্বরকে ‘বাংলাদেশ ইমিগ্রেশন ডে’-এর ঘোষণাপত্র হস্তান্তর অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক  এসব কথা বলেন।

যে রূপেই জামায়াতে ইসলামী আসুন না কেন, তৎকালীন জামায়াতে ইসলামীর নেতা যারা ছিলেন তারা যদি মানবতাবিরোধী অপরাধের মধ্যে সম্পৃক্ত থাকে তবে আদালতে তাদের জবাবদিহি করতে হবে।

জামায়াতে ইসলামীর কোনো নেতা নতুন দল গঠন করলে তা খতিয়ে দেখা হবে বলে জানান আইনমন্ত্রী ।

মানবতাবিরোধী অপরাধে জড়িত  নেই এমন কোনো জামায়াত নেতা যদি নতুন দল করতে চায় তবে আইনগতভাবে কোনো বাধা থাকবে কি না- এমন প্রশ্নে আইনমন্ত্রী বলেন, সেটা যখন তিনি করতে যাবেন তখন আমরা খতিয়ে দেখব।

  জামায়াত ইসলামীকে নিষিদ্ধ করার অগ্রগতি কতটুকু-জানতে চাইলে আইন মন্ত্রী বলেন, যে মামলাটি আপিল বিভাগে পেন্ডিং আছে, সেটা জামায়াতের নিবন্ধন বাতিল করার জন্য। হাইকোর্ট ডিভিশন তাদের নিবন্ধন বাতিলের পক্ষে রায় দিয়েছেন। সেটার বিরুদ্ধে তারা আপিল করেছে তা এখন ঝুলন্ত অবস্থায় আছে। আপিলে যদি হাইকোর্ট ডিভিশনের রায় বহাল থাকে তাহলে জামায়াতের নিবন্ধন বাতিল হয়ে যাবে। সেক্ষেত্রে জামায়াত রাজনৈতিক দল হিসেবে বাংলাদেশে আর থাকতে পারবে না।

ফৌজদারি অপরাধে জামায়াত নেতাদের বিচার করা হবে জানিয়ে আইনমন্ত্রী বলেন, ১৯৭১ সালে আমাদের মুক্তিযুদ্ধের সময় তারা মানবতাবিরোধী যে অপরাধ করেছে সেই অপরাধের বিচার চলছে, চলবে। আপনারা এটাও জানেন, ফৌজদারি অপরাধ কিন্তু তামাদি হয় না।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

x