মাস্ক না পরে দোকানে এলে জরিমানার প্রস্তাব

বৃহস্পতিবার (২৮ মে) এক যৌথ বিবৃতিতে বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতি প্রস্তাব করেছে মাস্ক না পরে কেউ দোকানে এলে তাকে ৫০০ টাকা জরিমানা করার জন্য। এছাড়া হাঁচি-কাশি ও জ্বর নিয়ে দোকানে এলে এক হাজার টাকা জরিমানা চান দোকান মালিকরা। এই প্রস্তাবের কথা জানিয়েছেন বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির সভাপতি হেলাল উদ্দিন ও মহাসচিব জহিরুল হক ভূঁইয়া।

বিবৃতিতে আরো বলা হয়, দেশে করোনার সংক্রমণ ও মৃত্যুর হার বৃদ্ধি পাওয়া সত্ত্বেও মানুষের জীবিকার তাগিদে পরিস্থিতি ধীরে ধীরে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরিয়ে আনার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। ইতিমধ্যেই রমজান মাসে মার্কেট ও দোকান খোলা রেখে আমরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার ট্রেনিং সম্পন্ন করেছি। যদিও তা সত্ত্বেও শতভাগ দোকান মালিক, কর্মচারী ও ক্রেতাসাধারণকে মাস্ক পরানো সম্ভব হয়নি।

দোকান মালিক সমিতির বিবৃতিতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার উদ্ধৃতি দিয়ে বলা হয়, শুধু মাস্ক ব্যবহার করলে করোনা সংক্রমণ ৮০ শতাংশ প্রতিরোধ করা সম্ভব। এ অবস্থায় সব বিভাগীয়, জেলা ও উপজেলা শহরের দোকান মালিক সমিতি ও মার্কেট কমিটিকে অনুরোধ করা যাচ্ছে, শতভাগ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলে।

বিবৃতিতে সরকারের কাছে অনুরোধ জানানো হয়, বিশেষ করে মাস্ক না পরা ও যথাযথ শারীরিক দূরত্ব মানা না হলে ৫০০ টাকা করে জরিমানা এবং কেউ হাঁচি, কাশি, জ্বর নিয়ে লোকালয়ে গেলে এক হাজার টাকা জরিমানার বিধান রাখা যেতে পারে। আমাদের মনে রাখতে হবে, আগে জীবন পরে জীবিকা।

বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতি আগামী ৩১ মে থেকে রাজধানীসহ সারাদেশের মার্কেট, বিপণিবিতান ও দোকানপাট খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত দোকান খোলা রাখতে চান তারা।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

x