যে ৪ খাবার ত্বক ভালো রাখবে

Spread the love
  • 8
    Shares

উৎস ডেস্কঃ

পুষ্টি-বিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন ভারতের আয়না স্কিন ক্লিনিকের প্রতিষ্ঠাতা ডা. সিমাল সোইন এ বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছেন।

তিনি বলেন, সবুজ ও গাড়ো রঙের সবজি, টক-জাতীয় খাবার, পরিষ্কার পানীয়, প্রোটিন ও ওমেগা-থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড ত্বক ভালো রাখে।

ত্বকের যত্নে যা করবেন

ত্বকের যত্নে টমেটো

ত্বকের যত্বে ও খাবার হিসেবে টমেটো খেতে পারেন। টমেটো লাইকোপেন নামক অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট যা কোষের ক্ষয় কমিয়ে ত্বক টান টান ও তারুণ্যময় রাখে। টমেটো রয়েছে ভিটামিন সি ও প্রাকৃতিক সানস্ক্রিনের গুণ। যা সূর্যের প্রতি সংবেদনশীলতা কমায়, ত্বকের তেল নিয়ন্ত্রণ, ব্রণ কমায় ও ত্বক ভালো রাখে। প্রতিদিন টমেটোর সুপ খেলে ত্বক ভালো থাকে।

হলুদের ব্যবহার

রূপচর্চায় হলুদের জুড়ি নেই। প্রদাহ ও ব্যাকটেরিয়ারোধী উপাদান সমৃদ্ধ হলুদ ত্বকের বর্ণ, এলার্জি, কালচেভাব, রোদেপোড়া দাগস, বয়সের ছাপ ধীর করে এবং ত্বকের প্রাকৃতিক উজ্জ্বলতা বাড়ায়, এবং বিভিন্ন সমস্যা দূর করতে সাহায্য করে। খালি পেটে হলুদ-পানির মিশ্রণ পান করলে ত্বক ভালো থাকে।

সূর্যমুখীর বীজ

সূর্যমুখির বীজ ভিটামিন ই সমৃদ্ধ। এটা ‘ফ্রি রেডিক্যাল’য়ের কারণে হওয়া কোষের ক্ষয় কমায়। আর খুব ভালো ‘অ্যান্টি এজিং’ হিসেবেও কাজ করে।

এই বীজে ভালো প্রদাহরোধী উপাদানসমৃদ্ধ। যা সংক্রমণের কারণে হওয়া ত্বকের ক্ষতি ও অস্বস্তি কমাতে সহায়তা করে। সালাদ, সকালের নাস্তা, সবজি ভাজি তে এই বীজ খেতে পারেন।

মিষ্টি আলু

মিষ্টি আলু অ্যান্টিঅক্সিডেন্টসমৃদ্ধ। যা ত্বক প্রাকৃতিকভাবেই উজ্জ্বল করে। টমেটোর অ্যান্থোসায়ানিন নামক উপাদানের জন্য লালচে–বেগুনি হয়ে থাকে। এটা ত্বকের দাগ ছোপ কমায়।

এছাড়া মিষ্টি আলুর ভিটামিন সি ত্বকের কোষকলা উৎপাদন করায় ত্বক হয় টানটান ওগঠন সুন্দর হয়। ভিটামিন ই’র ভালো উৎস হওয়ায় ত্বক থাকে তারুণ্যময় ও সুস্থ। প্রতিদিন সালাদে মিষ্টি আলু খেতে পারেন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

x