শৈলকুপায় ১২ দিনে ৪ খুন

Spread the love
  • 8
    Shares

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ

ঝিনাইদহ জেলা শৈলকুপা উপজেলায় ২৯ এপ্রিল থেকে ১১ মে গত ১২ দিনে ৪ টি হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটেছে এর মধ্যে ২ জনই ছাত্র। এসময় প্রতিপক্ষের হামলা, পাল্টা হামলায় আহত হয়েছে আরো শতাধিক।

২৯ এপ্রিল ত্রিবেণী ইউনিয়েনের শেখপায়া গ্রামে জমি জমা সংক্রান্ত ঘটনার জের ধরে প্রতিপক্ষ কুপিয়ে হত্যা করে রবিন্দ্র মৈত্রী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র আরাফাত বিশ্বাসকে, ৩ মে হাকিমপুর ইউনিয়নের সুবিদ্দাহ-গোবিন্দপুর গ্রামে প্রতিপক্ষ পিটিয়ে হত্যাকরে মুদি দোকানী জোয়াদ আলীকে।

১১ মে সকালে প্রতিপক্ষের অতর্কিত হামলায় লাল্টু ও অভি নামের ২ যুবক নিহত হয়েছে কাঁচেরকোল ইউনিয়নের ধুলিয়াপাড়া গ্রামে। এর মধ্যে লাল্টু মুদিদোকানী ও অভি ছাত্র। আহতদের মধ্যে আরো দুজন নিহত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাস আতঙ্কে মানুষ ঘরবন্দি, অফিস আদালত, কলকারখানা বন্ধ। এর প্রভাব শৈলকুপাতে নেই বললেই চলে।

প্রতিটি গ্রামেই আধিপত্য বিস্তার, ত্রান দেওয়া নেওয়া, সামাজিক দ্বন্দ্ব নানান ঘটনায় প্রতিদিন কোনো না কোনো কাইজা, মারামারি, দাঙ্গা হাঙ্গামা লেগেই আছে। এ ঘটনাগুলো তাৎক্ষণিক কোনো ঘটনা নয়। দীর্ঘদিন ধরে জিইয়ে রাখা ঘটনাগুলোর প্রতিফলন। বিএনপি বা অন্যান্য রাজনৈতিক দলের সমর্থকেরা সামাজিকভাবে আওয়ামীলীগ এর দুটি ধারার সাথে মিশে আছে। তাই এখানে যে দাঙ্গা-হাঙ্গামাগুলো হচ্ছে তা এই দুই ধারার মধ্যে।

ধুলিয়াপাড়া গ্রামে দুটি খুন হয়েছে। দুটিই এক পক্ষের। গত রবিবার রাতে অপর পক্ষের আবেদ আলী খান নামের একজন বৃদ্ধকে পিটিয়ে আহত করা হয়েছে। এ গ্রামটিতে কয়েক বছর ধরে দাঙ্গা-হাঙ্গামা লেগে ছিল। এবার হয়তো এর অবসান হবে। তবে আরো একাধিক খুনের ঘটনা ঘটতে পারে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

x