সন্তানের খাবার কিনতে মায়ের চুল বিক্রি

Spread the love

উৎস ডেস্কঃ
দুইদিন ধরে ঘরে কোনো খাবার নেই। ত্রাণের জন্য ঘুরেছেন অনেকের দরজায়। নিজের ক্ষুধা হয়তো সহ্য করা যায়, কিন্তু ১৮ মাসের শিশুর কান্না যেন তার বুকে শেলের মতো ধাক্কা দেয়। তাই হকারের (চুল ক্রেতা) কাছে মাথার চুল বিক্রি করে দিয়েছেন ওই নারী।

গত সোমবার (২০ এপ্রিল) দুপুরে ঢাকার সাভারের ব্যাংক কলোনি এলাকায় ঘটে এমন ঘটনা। ওই নারীর নাম সাথী বেগম। কাজের সন্ধানে ময়মনসিংহ থেকে মাস চারেক আগে রাজধানীর মিরপুর ও তার কিছুদিন পর সাভারের ব্যাংক কলোনি এলাকায় আসেন তিনি।

সাভারে সন্তানের খাবার কিনতে নিজের চুল বিক্রি করে দিলেন মা। এলাকায় নতুন হওয়ার কারণে কারও সহায়তা না পেয়ে নিজের চুল বিক্রি করেন বলে জানান ওই নারী।

সাথী বেগম বলেন, দু’দিন ধরে দুই সন্তানকে নিয়ে না খেয়ে থেকে ত্রাণের জন্য চেষ্টা করেছি। কেউ কোনো সহায়তা করেনি। সোমবার দুপুরে বাড়ি ফেরার পথে পরিচয় হয় এক হকারের (চুল ক্রেতা) সঙ্গে। সে চুল দেখে তিন-চারশ টাকা দেয়ার কথা বললেও ১৮০ টাকা দিয়ে চলে যায়।

তিনি বলেন, এলাকায় নতুন হওয়ার কারণে তিনি কারও সহায়তাও পাননি। ক্ষুধায় সন্তানরা কাঁদছে। ঘরে কোনো টাকা কিংবা কোন সম্পদ নেই, যা দিয়ে খাবার কিনবেন। কোনো উপায় না পেয়ে নিজের মাথার চুল ১৮০ টাকায় বিক্রি করে দিয়েছি।

সাথী বেগমের স্বামী মানিক পেশায় দিনমজুর, তিনি নিজেও বাসা-বাড়িতে কাজ করেন। করোনা ভাইরাস সংক্রমণ শুরু হলে দু’জনেই কাজ হারিয়ে অসহায় হয়ে পড়েছেন। হকারের কাছ থেকে পাওয়া টাকা দিয়ে নিজের সন্তানের জন্য সামান্য পরিমাণ দুধ ও এক কেজি চাল কিনেছেন।

এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে সাভার উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা পারবেজুর রহমান বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই। এমন হয়ে থাকলে তা অত্যন্ত দুঃখজনক। খুব দ্রুত ওই পরিবারকে ত্রাণ পৌঁছে দেয়ার ব্যবস্থা করা হবে।

সাভার পৌর মেয়র আব্দুল গনি জানান, তিনি পৌর এলাকার অনেক হতদরিদ্রদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করেছেন। তবে বাচ্চার খাবারের জন্য কেউ চুল বিক্রি করেছেন, এমনটা তার জানা নেই।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

x