সরকারি বাসভবনে গোয়ালঘর বানালেন শিক্ষামন্ত্রী!

Spread the love
  • 22
    Shares

আসাম রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী সরকারদলীয় (বিজেপি) বর্ষীয়ান নেতা সিদ্ধার্থ ভট্টাচার্য তার সরকারি বাসভবনে উঠেননি। তবে তিনি না উঠলেও সেই বাসভবনে তিনি গরু পালছেন।

ভারতীয় গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে বলা হয়, মন্ত্রী তার জন্য নির্ধারিত বাসভবনে না গেলেও সেখানে উন্নত জাতের গরুর জন্য বাসস্থান তৈরি করেছেন। সেখানে রীতিমতো অনেকগুলো গরু রাখা হয়েছে। তবে তিনি সেখানে যাবেন বলেও জানানো হয়েছে ওই প্রতিবেদনে।

ওই খামারের গরু থেকে প্রতিদিন বিশ থেকে পঁচিশ লিটার দুধ পাওয়া যায়। খামারে যেসব দুধ উৎপাদন করা হয় তা পাঠিয়ে দেয়া হয় শিক্ষামন্ত্রী সিদ্ধার্থ ভট্টাচার্যের বাড়িতে।

এ ছাড়া আসামের গোহাটির বিভিন্ন মন্দিরে পূজার কাজে ব্যবহারের জন্য ওই দুগ্ধ খামার থেকে দুধ সরবরাহ করা হয়।

ওই সংবাদে বলা হয়, উন্নত জাতের ওই গরুগুলোকে সেখানে রাখা হয়েছে ডেইরি ফার্ম তথা দুগ্ধ খামার তৈরি করার জন্য। প্রথমবারের মতো আসামের মন্ত্রিসভার কোনো সদস্য সরকারি বাসভবনে দুগ্ধ খামার দিয়েছেন।

প্রতিবেদনে বলা হয়, এর আগে বিহার রাজ্যের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী লালু প্রসাদ যাদবও নিজ বাসভবনে গোয়ালঘর বানিয়েছিলেন।

আসামের শিক্ষামন্ত্রী তার সরকারি বাসভবনে শুধু গোয়ালঘর ও গরুগুলোর দেখাশোনা করার জন্য চারজনকে নিয়োগও দিয়েছেন।

উল্লেখ্য, ২১০৬ সালে ভারতের লোকসভা নির্বাচনে কংগ্রেসের ববিতা শর্মাকে রেকর্ড ব্যাবধানে হারিয়ে তিনি প্রাদেশিক পরিষদের সদস্য নির্বাচিত হন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

x